ভারতে চলচ্চিত্রের আদিপর্ব বিশ্লেষণ করে চলচ্চিত্র শিল্পে সত্যজিৎ রায়ের অবদান আলােচনা করাে

ভারতে চলচ্চিত্রের আদিপর্ব বিশ্লেষণ করে চলচ্চিত্র শিল্পে সত্যজিৎ রায়ের অবদান আলােচনা করাে। Mark 4 | Class 10

উত্তর:-

চলচ্চিত্রের আদিপর্ব: ঔপনিবেশিক শাসনপর্বে ভারতে ১৮৯৬ খ্রিস্টাব্দে হরিশ্চন্দ্র সখারাম ভাতওয়াডেকর ‘দ্য রেস্টলারস’ নামক একটি সচল ও নির্বাক ছবি নির্মাণ করেন। পরবর্তীকালে ধুন্দিরাজ গােবিন্দ ফালকে তৈরি করেন ‘রাজা হরিশ্চন্দ্র’ নামক চলচ্চিত্র (১৯১৩ খ্রি.)। তবে, ‘আলম আরা’ চলচ্চিত্রটি ছিল (১৯৩১ খ্রি.) ভারতের প্রথম পূর্ণ দৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র। ভারতে হীরালাল সেন প্রথম চলচ্চিত্র প্রদর্শনের ব্যবস্থা করেন এবং এই উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠা করেন ‘রয়্যাল বায়ােস্কোপ কোম্পানি’। ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পে সত্যজিৎ রায়ের ভূমিকা অনস্বীকার্য।

১) চলচ্চিত্র নির্মাণ : বিজ্ঞাপন জগতের সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করে সত্যজিৎ যখন চলচ্চিত্র নির্মাণে আত্মনিয়ােগ করেন এবং তাঁর বিশ্ববিখ্যাত চলচ্চিত্র ‘পথের পাঁচালী’ ১৯৫৫ খ্রিস্টাব্দে মুক্তি পায়, তখন থেকেই ভারতীয় চলচ্চিত্রে এক নতুন যুগ শুরু হয় বলা যেতে পারে। 

২) সত্যজিতের বিখ্যাত চলচ্চিত্রসমূহ : ১৯৫৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে ১৯৯২ খ্রিস্টাব্দে তার মৃত্যুকাল পর্যন্ত সময়ে তিনি  ‘অপরাজিত’, ‘অপুর সংসার’, ‘দেবী’, ‘জলসাঘর’, ‘চারুলতা’, ‘গুপিগাইন-বাঘাবাইন’, ‘হীরক রাজার দেশে’, ‘সােনার কেল্লা’,  শাখাপ্রশাখা’, ‘আগন্তুক’ প্রভৃতি একের পর এক আন্তর্জাতিক মানের চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। ভারতীয় চলচ্চিত্রকে তিনি অস্কার-সহ বহু আন্তর্জাতিক পুরস্কার এনে দেন।


Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Class 10, Class 10 History, অধ্যায় ১ - ইতিহাসের ধারণা

Leave a Comment

Your email address will not be published.