দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির পিছনে ব্রিটিশদের উদ্দেশ্য কী ছিল? 

দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির পিছনে ব্রিটিশদের উদ্দেশ্য কী ছিল?    4 Marks/Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : ব্রিটিশ সরকার নিরঙ্কুশভাবে ভারতকে স্বাধীনতা দান করেনি। তারা ব্রিটিশ পার্লামেন্টে স্বাধীনতার সময় যে আইন রচনা করে তার মধ্যে নিশ্চিতভাবে ভারতে বিচ্ছিন্নতাবাদের বীজ বপন করেছিল।

ব্রিটিশদের উদ্দেশ্য : দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির পিছনে ব্রিটিশ উদ্দেশ্যগুলি হল—

১. দেশীয় রাজ্যের গুরুত্ব স্বীকার : ১৯৩৫ খ্রিস্টাব্দের ভারত শাসন আইনে দেশীয় রাজ্যগুলিকে যে পরিমাণ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছিল, ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দের স্বাধীনতা আইনে সেই গুরুত্ব যথাযথ বহাল ছিল। 

২. জটিলতা তৈরি : দেশীয় রাজাদের পরিপূর্ণ স্বাধীনতা ঘােষণা করে এই অধিকারও তাদের দেওয়া হয়েছিল যে, তারা তাদের ইচ্ছেমতাে ভারত বা পাকিস্তান যে-কোনাে ডােমিনিয়নে যােগ দিতে পারবে। 

৩. ভারতীয় ঐক্য বিপন্ন করার চেষ্টা : ভারত ভাগের সময় দেশীয় রাজ্যের সংখ্যা ছিল ৫৬২টি। অতএব ভারতবর্ষ স্বাধীনতা পেলে আলাদা ৫৬২টি রাজ্য তৈরি হবে এবং ভারত ও পাকিস্তান দুটি আলাদা রাষ্ট্রে বিভক্ত হলে ভারতের রাজনৈতিক, ভৌগােলিক ও সাংস্কৃতিক ঐক্য বিপন্ন হবে বলে মনে করা হয়েছিল। 

৪. দুর্বল ভারত : ব্রিটিশরা মনে করেছিল যে, ছিন্নবিচ্ছিন্ন ভারতবর্ষ দুর্বল হয়ে পড়ার সম্ভাবনা দেখা দেবে। ভারতকে এইভাবে বিচ্ছিন্নতাবাদের মুখােমুখি দাঁড় করিয়ে ব্রিটিশ কমনওয়েলথ-এর স্বার্থরক্ষা করার কথা ভাবা হয়েছিল।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!