বাংলার বিপ্লবী আন্দোলনে অনুশীলন সমিতির অবদান লেখাে। 

বাংলার বিপ্লবী আন্দোলনে অনুশীলন সমিতির অবদান লেখাে।    4 Marks/Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : বাংলার বিপ্লবী আন্দোলনের ইতিহাসে অনুশীলন সমিতি ছিল প্রথম বিপ্লবী সমিতি।

প্রতিষ্ঠা : ১৯০২ খ্রিস্টাব্দে কলকাতায় সতীশচন্দ্র বসু শরীরচর্চার সংস্থারূপে অনুশীলন সমিতির প্রতিষ্ঠা করলেও ক্রমশ সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে দেশকে স্বাধীন করাই এই সমিতির প্রধান উদ্দেশ্য হয়ে ওঠে। পরবর্তী সময়ে ব্যারিস্টার প্রমথনাথ মিত্র এর সর্বাধিনায়ক ও সভাপতি হন। ক্রমশ কলকাতা ও বাংলার বিভিন্ন স্থানে এই সমিতির শাখা স্থাপিত হয়। 

অনুশীলন সমিতির অবদান : 

১. শরীরচর্চা : এই সংগঠনে নিয়মিতভাবে ‘গীতা’ ও ‘আনন্দমঠ’ পাঠ, শরীরচর্চা, লাঠি খেলা ও সামরিক কুচকাওয়াজ করা হত। 

২. বিপ্লবী কার্যকলাপ : প্রতিষ্ঠাকালে অনুশীলন সমিতি সরাসরি রাজনৈতিক কার্যকলাপে যুক্ত না থাকলেও স্বদেশি আন্দোলন শুরু হলে বাংলায় উত্তাল রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে এই সমিতি বিপ্লবী কার্যকলাপে প্রত্যক্ষভাবে জড়িয়ে পড়ে। 

৩.পুলিনবিহারী দাসের উদ্যোগ : সরকারি দমননীতির কারণে ১৯০৯ খ্রিস্টাব্দে কলকাতার অনুশীলন সমিতিকে নিষিদ্ধ করা হলেও ঢাকায় পুলিনবিহারী দাসের নেতৃত্বে অনুশীলন সমিতির বিপ্লবী কর্মকাণ্ড অব্যাহত থাকে।

উপসংহার : অনুশীলন সমিতির দেশপ্রেম ও আত্মত্যাগের আদর্শ জাতিকে উদ্বুদ্ধ করে এবং পরবর্তীকালে অনুশীলন সমিতির কাজকর্ম বাংলার কংগ্রেসি রাজনীতি ও বামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে অঙ্গীভূত হয়ে পড়ে।


Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Class 10, Class 10 History, অধ্যায় ৭ - বিশ শতকে ভারতে নারী, ছাত্র ও প্রান্তিক জনগােষ্ঠীর আন্দোলন : বৈশিষ্ট্য ও বিশ্লেষণ

Leave a Comment

Your email address will not be published.